ডেঙ্গু কেড়ে নিল একমাত্র উপার্জনক্ষম মানুষটিকেও

ময়মনসিংহের ত্রিশালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাফিজুর রহমান নামে (৩৫) এক পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার দরিরামপুর গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে।

নিহতের পরিবার জানায়, হাফিজুল ইসলাম ঢাকার গাজীপুরে পোশাক কারখানায় কর্মী হিসেবে কাজ করেন। ঈদের ছুটিতে বাড়িতে আসার পর তিনি ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালে হাফিজুলের শরীরের অবস্থা কিছুটা উন্নতি হওয়ায় বাড়ি চলে আসেন তিনি।

তবে মঙ্গলবার তার অবস্থা অবনতি হলে প্রথমে ত্রিশালে টিএমসি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে মধ্যরাতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। পরে ঢাকা নেয়ার পথে বুধবার ভোর ৫টার দিকে মারা যান হাফিজুল।

হাফিজুলের বন্ধু আতিকুর রহমান বলেন, হাফিজুলের আয় দিয়ে পরিবারের ৫/৬ জনের সংসার চলত। স্ত্রী ছাড়াও ছোট ছোট ৪টি সন্তান রয়েছে। তার মৃত্যুতে গোটা পরিবারে অন্ধকার নেমে এসেছে।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. লক্ষ্মী নারায়ণ মজুমদার জানান, হাফিজুল নামে এক ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। জানা মতে তিনি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। তবে তার মৃত্যুর ব্যাপারে কোনো তথ্য জানা নেই আমাদের।

এদিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও (খুমেক) চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহিদা (৫০) নামে এক ডেঙ্গু রোগী মারা গেছেন। বুধবার ভোরে তিনি মারা যান। এ নিয়ে খুলনায় ৬ জন ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হলো।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলার পশারীবুনিয়া গ্রামের সাইদুর রহমানের স্ত্রী শাহিদা। তিনি মঙ্গবার (২৭ আগস্ট) রাত পৌনে ৮টার ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। ডেঙ্গু ছাড়াও তিনি ডায়াবেটিস ও লিভারের রোগে আক্রান্ত ছিলেন।

(Visited 16 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *